NID Card অনলাইন! অনলাইন থেকেই নিয়ে নিন আপনার NID নম্বরটি! - IT Protidin
NID Card

NID Card অনলাইন! অনলাইন থেকেই নিয়ে নিন আপনার NID নম্বরটি!

by admin
468 views

সবার জন্য খুশির সংবাদ, আপনার যারা NID Card অনলাইনে খুজছিলেন তাদের জন্য। আগেই বলে রাখি, আগেই বলে রাখি NID যারা ২০১৯ সালে নিবন্ধন করে এখনও পাননি তারা পদ্ধতির মাধ্যমে NID নম্বর নিতে পারবেন।

সবাই কেমন আছেন! বর্তমান পরিস্থিতিতে কোনো কিছুই ভালো যাওয়ার কথা না। তারপরেও যার যার স্হান থেকে আল্লাহ সবাইকে সুস্থ এবং হেফাজতে রাখুক এই কামনা। সবাই নিয়মাবলী মেনে সতর্ক থাকার চেস্টা করবেন।

যেই ব্যাপারে বলতেছিলাম, National ID Card এর কথা! NID আমাদের প্রত্যাহিক জীবনে অপরিহার্য। ভোট দেওয়া ছাড়াও আমাদের ব্যাক্তিগত অনেক কাজে আমরা এই ভোটার আইডি কার্ড ব্যবহার করে থাকি। আমাদের পাসপোর্ট থেকে জুরুরি যেকেনো নিবন্ধনে NID Card লেগে থাকে।

যারা ২০১৯ সালে বা এর আগে নিবন্ধন করেও এখনো অনলাইন কপি পাননি তারা নিশ্চিত দেখতে পারবেন। এরআগেও আমরা অনেকে অনলাইনে NID কার্ড পাওয়া যাচ্ছে বলে অনেকবার গুজব শুনেছি। কিন্তু এবার আর মিথ্যা না। আপনি আপনার অনলাইনে NID নাম্বারটা নিশ্চিত দেখতে পাবেন। NID নাম্বার ব্যবহার করে আপনার দৈনান্দিন প্রয়োজনে কাজ শুরু করতে পারেন।

NID কার্ডের মূল অংশই হলো NID নাম্বারটা! এই নাম্বারের অনেকেই বিভিন্ন কাজে জন্য আটকে গেছেন এবং করোনো সংক্রমিত কারণে উপজেলা বন্ধ হওয়ায় নিতে পারছেন না তাদের জন্য অত্যন্ত জুরুরি এই পোস্ট। আবার অনেকে চেক করেও নিতে পারবেন আপনার টা ঠিকমতো আসছে কিনা। কারণ এসব কাজ আমাদের দেশে বিভিন্ন সমস্যায় আসেনা।

এরআগে বলে নিই, বাংলাদেশ সরকার এই ব্যবস্থাটি ২০২০ সালের ৩১শে মার্চ বন্ধ রেখেছিলো। পহেলা এপ্রিল এটা চালু করে। অনেকেই যারা নিয়মিত খবরাখবর রাখছেন তাদের অনেকে উজেলা থেকে ১৫০ টাকা দিয়ে মূল কপি হাতেও পেয়ে গেছেন।

আপনারা যারা এখনও পাননি তারা বর্তমানে অনলাইনের এই সুবিধা ব্যবহার করে NID নাম্বারটা নিয়ে নিতে পারেন। এবং কার্ডের NID যে নাম্বারটা পাবেন সেটি আপনি সব জায়গায় ব্যবহার করতে পারবেন। বর্তমানে সরকার NID ব্যবহার কারীদের নানা সুযোগ দিচ্ছেন। যা ব্যবহার করে আপনিও সুযোগসুবিধা নিতে পারবেন।

শুরুতে এই লিংকে ক্লিক করুন। তারপর আপনাকে নির্বাচন কমিশন বাংলাদেশ ওয়েভসাইটে নিয়ে যাওয়া হবে।

যেখানে, আপনি “অন্যান্য তথ্য” ক্লিক করবেন ছবির মতো।

তারপর ভোটার তথ্য” এ ক্লিক করবেন।

তারপর যেই ফর্মটি আসবে সেটি আপনি পুরণ করুন।
অবশ্যই ফর্ম নম্বর অপশন করে রাখবেন।

প্রথমে ভোটার নিবন্ধনের সময় যে স্লিপটি দেওয়া হয়েছে সেটি থেকে ফরম নম্বরটি সঠিকভাবে বসান।

তারপর নিবন্ধন করার সময় আপনি যে জন্ম নিবন্ধন ব্যবহার করেছেন সেটির সঠিক তারিখটা বসাবেন।

তারপর ক্যাপচা যেভাবে দেওয়া আছে সেভবে পুরণ করুন। না বুঝতে পারলে রিফ্রেশ করে নিবেন। অবশ্যই বড় হাতের, ছোট হাতের খেয়াল করবেন।

তারপর এরকম একটি তথ্য সেখান থেকে আপনার NID নম্বরটি সংগ্রহ করে নিন।

তারপর ভোটার তথ্য দেখুন-এ ক্লিক করে আপনার NID কার্ডের NID নাম্বারটা নিয়ে নিন। এখন থেকে এটিই আপনার সর্বজনীন NID নাম্বার! NID কপি মূলই হলো আপনার এই নাম্বারটা যা আপনি সবখানে ভবিষ্যতে ব্যবহার করতে পারবেন।

বি: দ্র: এই NID নাম্বারটা আপনি সব জায়গায় ব্যবহার করতে পারবেন। এবং আপনার NID কার্ডের হার্ড কপি হাতে পেতে অবশ্যই আপনার উপজেলায় যোগাযোগ করুন।

লিখেছেন: Sawon Kamrul

IT Protidin এর সাথেই থাকুন।

Leave a Comment