নতুন করে কয়েকটি bKash প্রতারণা সম্পর্কে জানুন এবং সতর্ক হোন~ - IT Protidin
bKash

নতুন করে কয়েকটি bKash প্রতারণা সম্পর্কে জানুন এবং সতর্ক হোন~

by admin
86 views

নতুন করে কয়েক ধরণের bKash প্রতারণা সম্পর্কে জানুন এবং নিজে বাঁচুন অপরকে বাচান।

আমি আপনাদের সাথে আজকে কয়েক ধরণের বিকাশ প্রতারণা নিয়ে কথা বলবো। আমাদের দেশের সব থেকে বড় সমস্যাগুলোর মধ্যে বিকাশ প্রতারণা অন্যতম। প্রতারক রা আকেক রকম রকমের ফাঁদ করেই নানা ভাবে সফল হচ্ছে আমাদের অসাবধানতার ফলে।

আমাদের দেশে অধিকাংশ মানুষই এখন মোবাইল ব্যাংকিং করে একজায়গা থেকে অন্য জায়গায়, এক দেশ থেকে অন্য দেশে টাকা লেনদেন করেন। তার মধ্যে রকেট এবং বিকাশ অন্যতম। তবে আমাদের দেশে bkash ব্যবহারকারী বেশি হওয়ায় এই ক্ষেত্রে প্রতারণাও অনেক বেশি। প্রতারকরা প্রতিনিয়ত নতুন নতুন ফাঁদ তৈরি করছে যাতে মানুষ খুব সহজেই ফাঁদে পা দেয়।

আমরা আগে থেকেই কয়েকটি কমন bkash প্রতারণার কথা জেনে আসছি। তবে আমি আপনাদের আরো কয়েকটি নতুন ফাঁদের কথাও জানাবো।

প্রতারণাগুলোর মধ্যে অন্যতম প্রতারণা হলো ফরগেট পিন দিয়ে আপনার মোবাইলে
পিন পাঠিয়ে আপনার থেকে নানা অজুহাতে পিনটি চেয়ে নিবে। তবে এফাঁদ অনেক কমন তারপরেও আমাদের দেশে অনেকেই এই ফাঁদে পা দিয়ে থাকে। বিশেষ করে কম শিক্ষিত লোকেরা এই ফাঁদে পা বেশি দিয়ে থাকেন। ওনাদের প্রতারকরা বলে থাকেন যে, আমরা বিকাশ অফিস থেকে বলছি আপনার একাউন্ট বন্ধ হয়ে যাবে যদি চালু রাখতে চান তাহলে আপনাকে পাঠানো পিন দেন, আমরা আবার চালু করে দিচ্ছি।

সাধারণ মানুষ সত্যি ভেবে তাদের পিন দিয়ে দেয় এবং তারা পিন নিয়ে আপনার একাউন্টে ঢুকে টাকা লুপে নেয়।

তবে আরেকটু স্মার্ট ফ্রডরা সরাসরি পিন চায় না, তারা একটু অন্যভাবে চায়, ধরুন পিন কোড পাঠিয়ে তারা বলে যে, আপনার পিন কোডটি কাউকে বলবেন না কারণ bKash কখনো পিন নাম্বার চায় না। প্রতারকরা আপনাকে আগে বিশ্বাস জোগাবে একটু অন্য ভাবে চায়। যেমন তারা বলবে, আচ্ছা আপনার পিন কোডটির শেষের অক্ষরটি বলুন এরপরে বলবে আপনার পিন কোডটির সাথে এতো যোগ বা বিয়োগ করে ফলাফল কত হয়!

সবথেকে নতুন এবং ভয়াবহ প্রতারণাও ইতোমধ্যে শুরু করে দিয়েছে। এপদ্ধিতে সামান্য অসতর্ক হলেই সবাই ফাঁদে পড়বে।

এই পদ্ধতি মূলত হ্যাকারদের সাহায্যে করে থাকে অথবা ব্যাক হ্যাকাররাও করে থাকে। যাকহোক আমি আপনাদের সেম্পল দেখাবো যাতে করে আপনি এটা থেকে নিজেকে বিরত রাখতে পারেন।

 

bKash

আপনারা নিচের ছবিটি দেখুন। একটা সাইট আছে যেখানে হ্যাকার মেসেজের টাইটেল চেন্জ করে হুবাহুব bKash এর টাইটেল বানিয়ে আপনাকে মেসেজ পাঠিয়ে বোকা বানাবে। এবং লেখাগুলোও তারা হিসেব করে মিলিয়ে পাঠাবে। যেটা সাধারণ মানুষের দ্বারা নির্বাচন করা কঠিন।

bKash

তারপর ঐ Url থেকে মেসেজ পাঠানো হলে এই রকম আসবে আপনার মোবাইলে। আপনার বুঝার উপায় থাকবে না কি করা এটা আসলেই ঠিক নাকি প্রতারণা! তারপর আপনাকে কান্নাকাটি করে বলবে যে ভুলে টাকা চলে গেছে। অনেক বিপদে আছে এবং তাকে টাকা পাঠিয়ে দিন।
আপনি যদি সত্যি ভেবে টাকা পাঠিয়ে দেন তাহলে শেষ! আপনাকে এই প্রতারণা ধরতে হলে অবশ্যই আপনি আগে টাকা চেক করে নিবেন এরপর যদি দেখেন আসলে টাকা চলে এসেছে তাহলে পাঠাতে পারেন।

আর কোনো ঝামেলায় পড়লে ১৬২৭৪ এ কল দিয়ে bkash সার্ভিস সেন্টারে যোগাযোগ করবেন। নিজে সতর্ক হোন অন্যকে সতর্ক করুন।

লিখেছেন: Pias Ja Man

NID কার্ড অনলাইন কপি বের করতে এখানে ক্লিক করুন। আইটি প্রতিদিনের সাথেই থাকুন।

Related Posts

Leave a Comment